Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সাধারণ তথ্য

কক্সবাজার জেলায় মৎস্য সেক্টরের অবদান এবং মৎস্য অধিদপ্তরের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের বিবরণ (২০১৫-১৬)

 

ক. কক্সবাজার জেলার মৎস্য সম্পদ :

 

১।পুকুর ও দিঘী : ১৮,১১৬ টি (৫,৬১৪.৯৮ একর)।

২। বাণিজ্যিক মৎস্য খামার : ১৩৪ টি (২৪৩.৭৭ হেক্টর)।

৩। বাগদা চিংড়ি খামার : ৩,৮৮৭ টি (৯১,৯৪৬.৭৪ একর)।

    ক) মৎস্য অধিদপ্তরের নিয়ন্ত্রণাধীন চিংড়ি খামার : ৭,০০০ একর

    খ) খাস খতিয়ানভূক্ত চিংড়ি খামার : ২৫,০৭৪.৯৫ একর

    গ) অর্ধ নিবিড় বাগদা চিংড়ি খামার  : ৬টি (৩১.৯৬ একর)

    ঘ) বাগদা চিংড়ি উৎপাদনের হার ১. সাধারণ খামারে ১৫০-২০০ কেজি (বার্ষিক একর প্রতি)

                                            ২. অর্ধ নিবিড় খামারে ২-৩ টন (বাষিক একর প্রতি)

৪। গলদা চিংড়ি ও রুই মিশ্র চাষের পুকুর :৬৭৩ টি(৪৩২.৪২ একর)।

৫। মনোসেক্স তেলাপিয়া খামার : ৭১৮ টি (৫০৮.৩৮ একর)।

৬। খাল : ৪৫ টি (৭,৭৭১ একর প্রায়)।

৭। নদী : ৫ টি (১৮,৮৯০ একর প্রায়)।

৮। বাগদা চিংড়ি হ্যাচারি : ৪৩ টি।

৯। গলদা চিংড়ি হ্যাচারি : ১ টি।

১০। মনোসেক্স তেলাপিয়া : ৮ টি।

১১। কার্প নার্সারি :৭৬ টি (২০.৮৭ হেক্টর)।

১২। কার্প হ্যাচারি : ২ টি।

১৩। চিংড়ি ডিপো :৩৭২ টি।

১৪। বরফকল : ৫৯ টি।

১৫। মৎস্য/চিংড়ি প্রকিয়াজাতকরণ কারখানা :৬ টি (৩ টি ই.উ. অনুমোদিত)।

১৬।শুটকী প্রক্রিয়াজাতকরণ স্থাপনা : ২০ টি (রপ্তানি সংশ্লিষ্ট)।

১৭। মৎস্যখাদ্য কারখানা : ২ টি।

১৮। মৎস্যখাদ্য আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান : ১১ টি।

১৯। মৎস্যখাদ্য বিক্রয় (পাইকারী) প্রতিষ্ঠান : ১২ টি।

২০ মৎস্যখাদ্য বিক্রয় (খুচরা) প্রতিষ্ঠান : ১২ টি।

২১। যান্ত্রিক মৎস্য নেৌযান : ৩,৫৪৯ টি।

২২। অযান্ত্রিক মৎস্য নেৌযান :১,৬৯১ টি

২৩। মৎস্যচাষি : ৪০,০০০ জন।

২৪। নিবন্ধিত জেলে :৩৮,৫১৯ জন।

 

 

 

          কক্সবাজার জেলার মৱস্য ও চিংড়ি উৎপাদন/আহরণের তথ্য (২০১১৪-১৫)

 

১. কক্সবাজার জেলায় বার্ষিক মৎস্য উৎপাদনের মোট পরিমাণ =২,৩৮,৮০০ মে. টন

২. সামুদ্রিক উৎস থেকে মৎস্য আহরণের পরিমাণ =১,৪০,০০০ মে. টন।

৩. চিংড়ির মোট উৎপাদন =২৫,০০০ মে. টন।

৪. আভ্যন্তরীণ জলাশয় থেকে মৎস্য আহরণ =৩৮,০০০ মে. টন।

৫. কক্সবাজার জেলায় ইলিশ আহরণের বার্ষিক পরিমাণ =৩৫,৮০০ মে. টন।

 

 

 

খ। মৎস্য অধিদপ্তরের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ডের বিবরণ

 

১। জেলেদের নিবন্ধন ও পরিচয়পত্র প্রদান প্রকল্প (৩৮,৫১৯ জন)।

২। জাতীয় কৃষি প্রযুক্তি প্রকল্প (NATP)।

৩। স্বাদু পানির চিংড়ি চাষ সম্প্রসারণ প্রকল্প।

৪। Strengthening of fishery and Aquaculture Food Safety and Quality Management System in Bangladesh(BEST)project(2010-2015)।

৫। মেরিন ফিশারিজ ক্যাপাসিটি বিল্ডিং প্রকল্প(২০০৭-১৬)।

৬। চিহ্নিত অবক্ষয়িত জলাশয় উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা এবং দেশীয় অবলুপ্তপ্রায় প্রজাতীয় মৎস্য সংরক্ষণ প্রকল্প।

৭। মানসম্মত মৎস্যবীজ ও পোনা উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে মৎস্য স্থাপনা পুনর্বাসন ও উন্নয়ন প্রকল্প।

৮। জাটকা সংরক্ষণ, জেলেদের বিকল্প কর্মসংস্থান এবং গবেষণা প্রকল্প।

৯। বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও সেচপ্রকল্প এলাকায় ও অন্যান্য জলাশয়ে সমন্বিত মৎস্য ও প্রানিসম্পদ উন্নয়ন (৪র্থ পর্যায়) প্রকল্প(FCDI)।

সাল

প্রকল্পের সংখ্যা

জলায়তন

(হেক্টর)

ব্যয়িত অর্থ

(লক্ষ টাকা)

সুফলভোগীর সংখ্যা

পুরুষ

মহিলা

মোট

২০১৩-১৪

৬ টি

২.৩৫৬

২৩.৭৮

৩৯

৩৩

৭২

২০১৪-১৫ প্রস্তাবিত

১৩ টি

১৩.৬৮

১৪৪.৬৮

৮৬

৫৭

১৪৩

 

কক্সবাজার জেলার মৎস্য উন্নয়ন বিষয়ক অন্যান্য কর্মকান্ড

১। জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন।

২। মা-ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম।

৩। রুই জাতীয় মাছের পোনা বিতরণ কার্যক্রম (২০১৫-১৬)।

জলাশয়ের সংখ্যা

জলায়তন

(হেক্টর)

পোনা সংখ্যা

পোনার োজন

(কেজি)

পোনার মূল্য

(টাকা)

সুফলভোগীর সংখ্যা (জন)

৫১৯

১৩৪.৮৭

১,৯৯,৫৫০

২,৯৭৮

১০,৪৯,৫৪০/-

১,০৪,৪৯৪ জন 

 

৪। পি.সি.আর ল্যাবরেটরী পরিচালনা।

৫। হ্যাচারি নিবন্ধন কার্যক্রম।

৬। SPF মাদার চিংড়ি উন্নয়ন কার্যক্রম।

৭। ‍“মৎস্যখাদ্য আইন ও পশুখাদ্য আইন, ২০১০” এর কার্যক্রম।

৮। রাজস্ব অর্থে মৎস্য বিষয়ক প্রশিক্ষণ।

৯। যান্ত্রিক নৌযানের নতুন লাইসেন্স প্রদান/নবায়ন (নতুন লাইসেন্স প্রদান:৪২৫টি, নবায়ন: ১,০১৭ টি)।

১০। সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদ জরীপ ব্যবস্থাপনা ইউনিট।

১১। এ-টু-আই প্রকল্প

মৎস্য/চিংড়ি চাষ বিষয়ক পরামর্শ প্রদান।

খামার/পুকুর পরিদর্শণ সেবা প্রদান।

তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক তথ্য-সেবা প্রদান।

চাকুরী সংক্রান্ত তথ্য-সেবা প্রদান।

কম্পোজ, প্রিন্ট ও ছবি তোলা।